সন্তান নিয়ে মায়ের বন্দিজীবনের গল্প

0
7

কারাগারেই সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন। সন্তানসহ চার বছর কারাগারে আটক থাকার পর মুক্তি পান গত বছর। বন্দিদশা থেকে মুক্তির পর সিরিয়ার এই ৩০ বছর বয়সী মা হাসনা দিবেইস নতুনভাবে জীবন শুরু করেন। তবে সেই জীবনও ঘাতপ্রতিঘাতের।

হাসনার গল্পটি আজ রোববার তুলে ধরেছে বার্তা সংস্থা এএফপি। হাসনা জানান, ২০১৪ সালের আগস্টে যখন তাঁকে বন্দী করা হয়, তখন তিনি দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। বিদ্রোহীদের সঙ্গে কাজ করার অভিযোগে দামেস্কের পূর্বাঞ্চলের ঘাউতা থেকে তাঁকে আটক করা হয়। এই চার বছরে তাঁকে নানা জায়গায় আটক রাখা হয়। এর মধ্যে একটিতে বাবা ও ভাইকে শেষবারের মতো দেখেছিলেন।

হাসনা বলেন, ‘আমার সামনেই তাঁদের (বাবা ও ভাই) নির্যাতন করা হচ্ছিল। সরকারি বাহিনীর সঙ্গে বিদ্রোহীদের যুদ্ধে প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের বিরুদ্ধাচরণের কারণে সিরিয়ার আটক লাখ লাখ মানুষের মধ্যে হাসনা একজন।

ব্রিটেনভিত্তিক সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটসের তথ্য অনুসারে, ২০১১ সালে যুদ্ধ শুরুর পর দুই লাখ মানুষ নিখোঁজ রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় অর্ধেক বিভিন্ন কারাগারে আটক রয়েছে বলে ধারণা করা হয়।

হাসনা জানান, তাঁকে আবর্জনাভর্তি একটি কারাকক্ষে ৪০ দিন একাকী বন্দী করে রাখা হয়। দেয়ালে কীটপতঙ্গ হেঁটে বেড়াত। চারপাশ থেকে নির্যাতনের শিকার বন্দীদের চিৎকার ভেসে আসত। সন্তান জন্ম দেওয়ার সময় একবারের জন্য শুধু তাঁকে কারাগারের বাইরে নেওয়া হয়। তিনি বলেন, ‘আমার জীবনে সন্তান এল এবং আমি জানতাম না যে কী করব।’ সন্তানের নাম মোহাম্মদ বলে জানালেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here