গোপন অস্ত্রে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ডোবাতে পারে ইরান

0
8

উপসাগরীয় অঞ্চলে ‘গোপন অস্ত্রের’ মাধ্যমে মার্কিন যেকোনো যুদ্ধজাহাজ ইরান ডুবিয়ে দিতে পারবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দেশটির জ্যেষ্ঠ একজন সামরিক কর্মকর্তা। গতকাল শনিবার দেশটির আধা সরকারি সংবাদ সংস্থা মিজানের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় রয়টার্স।

ইরানের জ্যেষ্ঠ সামরিক কর্মকর্তা জেনারেল মুর্তোজা কোরাবানি বলেছেন, উপসাগরীয় অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র ও ‘গোপন অস্ত্রের’ মাধ্যমে মার্কিন যুদ্ধজাহাজগুলো ডুবিয়ে দিতে পারে ইরান। গত শুক্রবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মধ্যপ্রাচ্যে আরও ১ হাজার ৫০০ সেনা মোতায়েনের কথা জানায়। এর পরই ইরানের পক্ষ থেকে এ কথা বলা হলো।

জেনারেল কোরাবানি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এই অঞ্চলে দুটি যুদ্ধজাহাজ পাঠিয়েছে। যদি মার্কিন বাহিনী নির্বোধের মতো সামান্যতম কোনো ঘটনা এ অঞ্চলে ঘটায়, তবে আমরা ক্ষেপণাস্ত্র বা দুটি নতুন ‘গোপন অস্ত্র’ ব্যবহার করে তাদের জাহাজ এবং ক্রুসহ বিমান সমুদ্রের নিচে পাঠিয়ে দেব। তবে ওই ‘গোপন অস্ত্র’ আসলে কী, তা তিনি খোলাসা করে বলেননি।

অপর একজন কমান্ডার জেনারেল হাসান সাইফি বলেন, যাঁরা (মার্কিন) অভিজ্ঞ এবং যুদ্ধ সম্পর্কে জানেন, তাঁরা কখনো আমাদের সঙ্গে যুদ্ধে জড়াতে চাইবেন না।

ইরান কর্তৃক সম্ভাব্য আক্রমণের হুমকি হিসেবে ট্রাম্প প্রশাসন বিমানবাহী রণতরীর বহরের সঙ্গে বোমারু বিমান এবং অতিরিক্ত প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র মধ্যপ্রাচ্যে পাঠিয়েছে। পশ্চিমা গবেষকেরা বলছেন, ইরান তাদের অস্ত্র ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলছে, তারা তেহরানের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা নিয়ে উদ্বিগ্ন, বিশেষ করে তাদের দূরপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here